• সোম. ডিসে ৫, ২০২২

আফগানদের বিপক্ষে টস হেরে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

অক্টো ১৭, ২০২২
বাংলাদেশ

আফগানদের বিপক্ষে টস হেরে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে সরাসরি সুযোগ পাওয়া দলগুলোর ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ শুরু হয়েছে আজ। নিজেদের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টসে হেরে বোলিংয়ে নামছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টায় ব্রিসবেনের অ্যালান বোর্ডার ফিল্ডে আফগানদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ।

টি-টোয়েন্টিতে সাম্প্রতিক সময়টা খুব ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়ের

পর অপেক্ষাকৃত দুর্বল আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজ জিতলেও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ত্রিদেশীয়

সিরিজের টানা চার ম্যাচে হেরেছে সাকিব আল হাসানের দল।

এতো হারের পরও বিশ্বকাপে ভালাও কিছু করার স্বপ্নই দেখছে টিম টাইগার্স। বিশ্বকাপ মিশন শুরুর আগে প্রস্তুতি ম্যাচে

নিজেদের শেষবারের মতো ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

এবার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হচ্ছে টি-২০ বিশ্বকাপ। কন্ডিশন সম্পর্কে বাংলাদেশের ব্যাটিং পরামর্শক সিডন্সের ধারণা

অব্যর্থ অস্ত্র হতে পারে। বাংলাদেশের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরামেরও কন্ডিশন নিয়ে বিস্তর জ্ঞান রয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বাউন্সি কন্ডিশনেও রান উৎসব হবে। যেখানে ২০০ রানকে ম্যাচের

মানদণ্ড ধরা হচ্ছে। তবে এই স্কোরকে হয়তো নিরাপদ বলার উপায় নেই। হাই-স্কোরিং বিশ্বকাপ সবার কল্পনায়

ধরা দিচ্ছে।

আধুনিক টি-২০ ক্রিকেটে ২০০ রান নিয়মিত ঘটনা। যদিও বাংলাদেশ দল এই ক্লাবে খুব বেশি বার পা রাখতে

পারেনি। ১৩৯ ম্যাচে মাত্র তিন বার এমন স্কোর গড়তে পেরেছিল টাইগাররা। সামগ্রিক বাংলাদেশের ব্যাটিং সামর্থ্য

কারোই অজানা নয়।

আজকের প্রস্তুতি ম্যাচ সামনে রেখে রোববার অনুশীলনে নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন টাইগাররা। অধিনায়ক

সাকিব আলা হাসান না থাকলেও দলের বাকি ক্রিকেটাররা ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন অনুশীলনে।

শেষ ৬ ম্যাচে ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এবার দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে

অবশ্য বিশ্বকাপের মূল আসরের ব্যাটিং অর্ডারই দেখা যাবে বলে জানালেন সিডন্স।

আগামী ২৪ অক্টোবর বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আরো একটি

প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সাকিব আল হাসানের দল।

বাংলাদেশ স্কোয়াড : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, আফিফ

হোসেন, ইয়াসির আলী চৌধুরি, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক ও সহ-অধিনায়ক),

মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ

ও এবাদত হোসেন।

আফগানিস্তান স্কোয়াড : মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), নাজিবউল্লাহ জাদরান (সহ-অধিনায়ক), রহমানউল্লাহ

গুরবাজ (উইকেটরক্ষক), আজমতউল্লাহ ওমরজাই, দারউইশ রাসুলি, ফরিদ আহমেদ মালিক, ফজলহক ফারুকি,

হযরতউল্লাহ জাজাই, ইব্রাহিম জাদরান, মুজিবুর রহমান, নাভিন উল হক, কাইস আহমেদ, রশিদ খান, সেলিম

সাফি ও উসমান গনি।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন