• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

আশুলিয়ায় চলন্ত প্রাইভেটকারে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক ৩

অক্টো ৯, ২০২২
আটক
সাভারের আশুলিয়ায় মহাসড়কে চলন্ত প্রাইভেটকারে ঢিল ছুড়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে তিন জনকে হাতেনাতে আটক করেছে পুলিশ।
এ সময় তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (০৯ অক্টোবর) দুপুরে
আটক ডাকাত সদস্যদের আশুলিয়া থানা থেকে প্রিজনভ্যানে করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে
আদালতে পাঠানো হয়।
এর আগে, একইদিন ভোরে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার কবিরপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃতরা হলেন- দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ থানার মনোহরা গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফ চৌধুরীর ছেলে মো. ইমরুল হাসান ইমন (২২), সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানার পাঁচ ঠাকুরি গ্রামের মো. সফিকুল ইসলামের ছেলে মো. রাসেল ইসলাম (২২) ও লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা থানার গুটিমারা গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে মো. প্রিন্স (২৭)। বর্তমানে তারা গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানার বিভিন্ন এলাকায় বসবাস করে আসছে। পুলিশ জানান, এরা মূলত আশুলিয়ার কবিরপুরে বেতারের জঙ্গল ঘিরে গড়ে ওঠা অপরাধী চক্র। বিভিন্ন সময় চলন্ত গাড়িতে ইট-পাথর ঢিল ছুড়ে গতিরোধ করে ছিনতাই ও ডাকাতি করে। এ ছাড়া পথচারী ব্যক্তিদেরও হামলা করে সব কিছু লুটে নেয়। আজ রোববার ভোরে একটি প্রাইভেটকার তাদের ডাকাতির কবলে পড়ে। এসময় খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে আটক করে। এছাড়া ঘটনায় জড়িত ৩ থেকে ৪ জন পালিয়ে যায়। মামলা দায়েরের পর তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতির মামলা হয়েছে। এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে এই এলাকায় ছিনতাই-ডাকাতি করে আসছিল। রিমান্ডের অনুমতি পেলে জিজ্ঞাসাবাদে আরো তথ্য জানা যাবে। প্রসঙ্গত, আশুলিয়ার কবিরপুরে ডাকাতির প্রতিবাদে স্থানীয়রা চলতি বছরে দুই দফা নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছিল। অপরাধীরা ডাকাতি ও ছিনতাই করে মহাসড়কের পাশে থাকা বাংলাদেশ বেতারের অধীনস্থ জঙ্গলে পালিয়ে যেত। বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে জঙ্গল পরিস্কারসহ পুলিশি টহল বাড়ানো হয়।