• শনি. জানু ২৮, ২০২৩

কাতার বিশ্বকাপে পোলিশ গোলরক্ষকের চমক

ডিসে ১, ২০২২

কাতার বিশ্বকাপে পোলিশ গোলরক্ষকের চমক

আর্জেন্টিনার জন্য গতকাল রাতের ম্যাচটা ছিল বাঁচা-মরার লড়াই।

সেই ম্যাচে প্রথমার্ধে লিওনেল মেসির পেনাল্টি ঠেকিয়ে

আলবিসেলেস্তেদের বড় একটা ভয়ই দেখিয়েছিলেন

পোল্যান্ড গোলরক্ষক। তবে আর্জেন্টিনা সে ভয়-শঙ্কা

উড়িয়ে দিয়েছে দ্বিতীয় অর্ধের পারফর্ম্যান্সে। অ্যালেক্সিস

ম্যাক অ্যালিস্টার আর ইউলিয়ান অ্যালভারেজের দারুণ

দুটো গোলে জয় তুলে নিয়েছে ২-০ গোলে।

পোল্যান্ড জেতেনি ঠিকই, তবে প্রতিপক্ষের হৃদয় কেড়ে

নিয়েছেন গোলরক্ষক ভয়চেক সেজনি। কী দুর্দান্ত সব সেভই না উপহার দিয়েছেন।

স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ পোল্যান্ডের গোলমুখে ১২টি শট নিয়েছে

আর্জেন্টিনা। যার ১০টিই ঠেকিয়ে দিয়েছেন সেজনি।

৩৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায়

আলবিসেলেস্তারা। ডি বক্সে লিওনেল মেসিকে ফাউল করে

বসেন পোল্যান্ড গোলরক্ষক। স্পট কিক থেকে সেই মেসিই

আবার শট নিতে আসেন। কিন্তু সেজনির বাধা টপকাতে

পারলে তো! মেসির শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ডান হাত দিয়ে ঠেকান তিনি।

তার উচ্ছ্বাসই বলে দিচ্ছিল নিজের ওপর আত্মবিশ্বাস কতটা অটুট ছিল।

শুধু ওই পেনাল্টির মুহূর্তই নয়, কাতার বিশ্বকাপে একের

পর এক চমক দেখিয়েই চলেছেন সেজনি। জুভেন্টাসে

খেলা এই গোলরক্ষক বেশ ভালোভাবেই নিজেকে

আলোচনায় রেখেছেন এবার। সৌদি আরবের বিপক্ষে

ম্যাচে পেনাল্টি ঠেকিয়ে তাক লাগিয়ে দেন তিনি।

সালেহ আল শেহরিকে ডি বক্সে ক্রিস্তিয়ান ব্রিক ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সৌদি আরব।

যদিও রেফারির চোখে প্রথমে তা ধরা পড়েনি। তবে

ভিএআর দেখার পর সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আসে। স্পট কিক

থেকে নেওয়া সালেম আল-দোসারির শট কোনোভাবেই

জালে ঢুকতে দেননি সেজনি। মোহাম্মেদ আল-ব্রেইকের

নেওয়া ফিরতি শটও বেশ দক্ষতার সঙ্গে বিপদমুক্ত করেন

তিনি। পেনাল্টি ছাড়াও ম্যাচের অন্যান্য সময়গুলোতেও পোল্যান্ডকে বাঁচিয়েছেন তিনি।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন