• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

কৃষক রেজাউলকে কুপিয়ে হত্যা : ৫ ভাইয়ের যাবজ্জীবন

অক্টো ৩১, ২০২২
রেজাউলকে

পূর্ব বিরোধের জেরে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর মাঝগ্রামের কৃষক রেজাউলকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ১৬ বছর পর পাঁচ ভাইয়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

একই সাথে তাদের ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

সোমবার কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মুহাম্মদ তাজুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার মাঝগ্রামের মৃত রহমত আলী শেখের

ছেলে উজ্জল শেখ (৫১), সেজ্জাত প্রকাশ সুজাত শেখ (৪১), সুজন শেখ (৩৯), আব্দুল গফুর শেখ (৬১) এবং জালাল উদ্দিন শেখ (৫৪)। সর্ম্পকে তারা আপন পাঁচ ভাই।

অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় এই মামলার সাত আসামিকে বেকসুর খালাস দেন আদালত।

রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচ আসামির মধ্যে আব্দুল গফুর ও জালাল উদ্দিনসহ মামলা থেকে খালাসপ্রাপ্ত সাতজন উপস্থিত ছিলেন।

মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত বাকি তিন আসামি পলাতক রয়েছে। কুষ্টিয়া জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ এবং এজাহার সূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা মাঝগ্রামের কৃষক আফিল উদ্দিন এবং তার ছোট ভাই জামাল উদ্দিন যৌথভাবে মাঠে সেচ দেয়ার জন্য একটি সেচযন্ত্র পরিচালনা করতো। জমিতে সেচ দেয়া সহ জমিজমা নিয়ে তাদের সাথে এই মামলার আসামিদের পূর্ব বিরোধ ছিল। সেই বিরোধের জেরে ২০০৭ সালের ১১ জুন রাত সাড়ে ১০টার দিকে সেচযন্ত্র চালু করার জন্য মাঠে যাওয়ার পথে আসামিরা জামাল উদ্দিন এবং তার ভাগনে রেজাউলকে কুপিয়ে আহত করে। তাদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই রেজাউল নিহত হন।

এই ঘটনার পরের দিন নিহতের ভাই আফিল উদ্দিন কুমারখালী থানায় ১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। এই মামলায় দীর্ঘ তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৭ জানুয়ারি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

পরে দীর্ঘ শুনানি শেষে পাঁচ সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত এই রায় ঘোষণা করেন।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন