• বুধ. ফেব্রু ১, ২০২৩

ডিনিপ্রোর একটি ভবনে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৩৫, নিখোঁজ ৪৩

জানু ১৬, ২০২৩

ডিনিপ্রোর একটি ভবনে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৩৫, নিখোঁজ ৪৩

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) ইউক্রেনজুড়ে তীব্র রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মধ্যে

ধসে পড়া ডিনিপ্রোর একটি নয় তলা অ্যাপার্টমেন্ট বিল্ডিং থেকে ৪৩ জন বাসিন্দা

এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। ওই ভবন থেকে ৩৫টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়র বরিস ফিলাতোভ হতাশা প্রকাশ করেছেন, নিখোঁজদের

জীবিত উদ্ধারের আশা খুব কম। এতে নিহতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মনে করেন মেয়র।

তিনি জানান, আহত ৭০ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তাদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা গুরুতর। পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

মাতেউস মোরাভিয়েস্কি ওই হামলাকে অমানবিক বর্ণনা করে জানান,

রাশিয়া ইচ্ছাকৃতভাবে বেসামরিক মানুষের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ করছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, ‘শনিবার রাতজুড়ে

ডিনিপ্রোর বহুতল ভবনের ধ্বংসাবশেষে উদ্ধার কাজ চলছে। আমরা

প্রতিটি মানুষের জন্য, প্রতিটি জীবনের জন্য লড়াই করছি।’

নতুন বছর শুরুর আগের দিন থেকেই ইউক্রেনের ওপর ভারী ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

শুরু করেছে রাশিয়া। বর্তমানে, ইউক্রেনের বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ গুরুত্বপূর্ণ

অবকাঠামো রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্র হামলার লক্ষ্যবস্তু, তবে কখনও কখনও

রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্রগুলো বেসামরিক বাড়িতেও আঘাত করছে।

ক্ষেপণাস্ত্র হামলার ঘনত্বের উপর নির্ভর করে রাশিয়া সম্প্রতি ইউক্রেন যুদ্ধে

কিছুটা অগ্রগতি করেছে বলে বোঝা যাচ্ছে। এমতাবস্থায় জেলেনস্কি পশ্চিমা

বিশ্বের কাছে আরও উন্নত অস্ত্র চেয়েছিলেন। ফ্রান্স, পোল্যান্ড

ও যুক্তরাজ্য দেশটিতে উন্নত ট্যাংক ও অস্ত্র পাঠাচ্ছে।

তাদের এই পদক্ষেপ কিয়েভকে উন্নত ট্যাঙ্ক সরবরাহ করার জন্য জার্মানির উপর

চাপ বাড়িয়েছে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক ইউক্রেনকে ১৪টি চ্যালেঞ্জার-২ ট্যাঙ্ক

ও কিছু অত্যাধুনিক আর্টিলারি শেল সরবরাহের ঘোষণা দিয়েছেন।

যুক্তরাজ্য জানিয়েছে, তারা শীঘ্রই চ্যালেঞ্জার-২ ও এএস৯০ কামান

চালানোর জন্য ইউক্রেনের বাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করবে।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন