• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের শুভসূচনা

অক্টো ২৩, ২০২২
নিউজিল্যান্ড

টি২০ বিশ্বকাপে শনিবার সুপার টুয়েলভের প্রথম ম্যাচে ‘ডিফেন্ডিং’ চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৮৯ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে গতবারের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড ।

আরেক ম্যাচে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। আফগানিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে জস বাটলারের দল। সিডনিতে ৩ উইকেটে ২০০ রান করে কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ড।

জবাবে ১৭.১ ওভারে ১১১ রানে অলআউট হয় অ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়া। অপরাজিত ৯২ রান করে ম্যাচসেরা হয়েছেন ডেভন কনওয়ে।

আর পার্থে ১৯.৪ ওভারে ১১২ রানে অলআউট হয় মোহাম্মদ নবির আফগানিস্তান। সর্বোচ্চ ৩২ রান করে ইব্রাহিম জাদরান। রাহমানউল্লাহ

গুরবাজ ১০ ও উসমান ঘানি ৩০ রান করে আউট হন। আর কেউ সুবিধা করতে পারেননি। ইংলিশদের হয়ে মাত্র ১০ রানের বিনিময়ে

৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন পেসার স্যাম কুরান। জবাবে ১৮.১ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। বাটলার

১৮, এ্যালেক্স হেলস ১৯ ও ডেভিড মালান ১৮ রান করে আউট হন। লিয়াম লিভিংস্টোন অপরাজিত থাকেন ২৯ রানে। মঈন আলি ৮।

গত টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। এবার সুপার টুয়েলভের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে

রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে কিউইরা। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে এদিন নিউজিল্যান্ড আগে ব্যাট করতে নেমে ডেভন কনওয়ে ও ফিন অ্যালেনের

ব্যাটে ভর করে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০০ রান সংগ্রহ করে। বড় টার্গেটে তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকে অসিরা। শেষ পর্যন্ত তারা

অলআউট হয় ১১১ রানে। ৮৯ রানের জয়ে বিশ্বকাপে দারুণ সূচনা করে কনওয়ে-অ্যালেনরা। বল হাতে নিউজিল্যান্ডের টিম সাউদি ২.১ ওভার

বল করে মাত্র ৬ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নেন। মিচেল স্যান্টনার ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে নেন ৩টি।

এছাড়া ট্রেন্ট বোল্ট ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে নেন ২টি উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার কেউ ব্যাট হাতে ২৮ রানের বেশি করতে পারেননি।

৩ চার ও ১ ছক্কায় এই রান করেন অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। টেলএন্ডে পেসার প্যাট কামিন্স করেন ২১ রান।

কিউইদের হয়ে ব্যাট হাতে অপরাজিত ৯২ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হন ডেভন কনওয়ে।

তার আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের তুলোধুনে করে ফিন অ্যালেন মাত্র ১৬ বলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় ৪২ রান করে

ফিরলেও কনওয়ে শেষ বল পর্যন্ত ছিলেন অপরাজিত। ৫৮ বলে ৭ চার ও ২ ছক্কায় তার খেলা অপরাজিত ৯২ রানের ইনিংসে ভর করে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০০ রান করে নিউজিল্যান্ড।

অ্যালেন ও কনওয়ে ঝড়ে ৪ ওভারেই ৫৬ রান তোলে কিউইরা। জস হ্যাজলেউডের বলে বোল্ড হন অ্যালেন। এরপর কনওয়ে ও কেন উইলিয়ামসন

দলীয় সংগ্রহকে টেনে নেন ১২৩ রান পর্যন্ত। তাও মাত্র ১৩ ওভারে। অ্যাডাম জাম্পার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন উইলিয়ামসন। ১ চার ও

১ ছক্কায় ২৩ রান করেন তিনি। এরপর গ্লেন ফিলিপসকে নিয়ে দলীয় সংগ্রহকে টানতে থাকেন কনওয়ে। ১৬তম ওভারের শেষ বলে ফিলিপস

ফেরেন হ্যাজলেউডের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে ১২ রান করে। নিউজিল্যান্ডের দলীয় সংগ্রহ তখন ১৫২ রান। এরপর জিমি নিশাম ও কনওয়ে

অবিচ্ছিন্ন থেকে দলের বড় স্কোর নিয়ে মাঠ ছাড়েন। কনওয়ের সঙ্গে ২ ছক্কায় ১৩ বলে ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন নিশাম।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুনআরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুনআরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন