• শনি. জানু ২৮, ২০২৩

পরীমনির বিচ্ছেদে অভিনেত্রীরা যা বললেন

জানু ১, ২০২৩

পরীমনির বিচ্ছেদে অভিনেত্রীরা যা বললেন

হঠাৎ করেই যেন চমকে ওঠার মতো ঘটনা ঘটল। রাতে যখন নগরের

মানুষ ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তখন পরীমনি ফেসবুকে লিখেছেন,

তাঁদের বিচ্ছেদ হচ্ছে। তাঁরা আর একসঙ্গে থাকছেন না। গভীর রাত হলেও

এই ঘটনা মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই

বুঝে উঠতে পারছিলেন না ঘটনা কতটা সত্য। পরে অবশ্য পরীমনি নিজেই

জানালেন, তিনি সংসার করছেন না। তাঁদের বিচ্ছেদ হচ্ছে। পরীর এমন

বক্তব্যে তাঁর পাশে রয়েছেন বেশ কয়েকজন তরুণ অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা।

তাঁরা কেউ পরীকে পরামর্শ দিচ্ছেন মাথা ঠান্ডা রাখতে, কেউ বলছেন,

ধৈর্য ধরতে। কেউ বুঝতেই পারছেন না পরীর স্ট্যাটাসের অর্থ কী।

পরীমনি লিখেছেন, ‘হ্যাপি থার্টি ফার্স্ট এভরিওয়ান। আমি আজ রাজকে

আমার জীবন থেকে ছুটি দিয়ে দিলাম এবং নিজেকেও মুক্ত করলাম একটা

অসুস্থ সম্পর্ক থেকে। জীবনে সুস্থ হয়ে বেঁচে থাকার চেয়ে জরুরি আর কিছুই নেই।’

পরীমনি ও তার ছেলে রাজ্য
পরীমনি ও তার ছেলে রাজ্য

ঢালিউডে নানা কারণে আলোচিত ও সমালোচিত চিত্রনায়িকার পাশে

রয়েছেন তরুণ অভিনেত্রীরা। অভিনেত্রী এলিনা শাম্মী লিখেছেন,

‘মাথা ঠান্ডা রাখো, বোন। আরেকটু ভেবে দেখার সুযোগ থাকলে একটু ভাবো,

তোমার ছেলে রাজ্যর জন্য হলেও।’ অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা

ফারজানা বিথি লিখেছেন, ‘শান্ত থাকো।’ চিত্রনায়িকা নিশাত সালওয়ার

লিখেছেন, ‘মানসিক শান্তির চেয়ে বড় কিছু নেই।’ পরীমনির এমন

স্ট্যাটাসের অর্থ কী, সেটা বুঝে উঠতে পারেননি অন্তরাখ্যাত অভিনেত্রী

ফারিয়া শাহরিন। তিনি লিখেছেন, ‘এর মানে কী?’ অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা

মিশু চৌধুরী লিখেছেন, ‘পরী সুস্থ থাকুন, সুস্থ হয়ে বাঁচুন। জীবন অনেক সুন্দর।’

চিত্রনায়িকা সুবহা হুমায়রা পরীর উদ্দেশে স্ট্যাটাসে মন্তব্য করেছেন,

‘জীবনটা তোমার, জীবনের সমস্যাগুলোও, তোমার জীবনের অর্জনও

তোমার। জীবনের যা সমস্যা হবে, সেটাও তোমার নিজেকেই সমাধান

করতে হবে। কে কী বলল, তাতে কোনো কিছু তোমার আসেনি বা আসার

কথাও না। তোমার জীবনে তোমার বাচ্চাটা আর তোমার নিজের নানা ছাড়া

আপনজন কেউই না, এখন মনে রেখো। মানুষ শুধু দূর থেকে তোমার

সমস্যা দেখে মজা নিতে পারবে আর সমালোচনা করতে পারবে। তোমার

জীবনের জন্য আর তোমার বাচ্চার ভালোর জন্য যা ভালো মনে হয়,

তা–ই করো। দিন শেষে ভালো থাকা খুবই জরুরি।’

এদিকে চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি প্রকাশ্যে আসে রাজ-পরীর সম্পর্কের খবর।

গত ২২ জানুয়ারি দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ১০১ টাকার

দেনমোহরে ঘরোয়া আয়োজনে তাঁদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। ২১ জানুয়ারি হয়

তাঁদের গায়েহলুদের অনুষ্ঠান। রাজ-পরীর ঘরে রাজ্য নামের

এক ছেলেসন্তান আছে। তার বয়স চার মাস পার হচ্ছে।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন