• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

বঙ্গোপসাগরে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হতে পারে চলতি মাসে

অক্টো ৯, ২০২২
ঘূর্ণিঝড়

বঙ্গোপসাগরে একটি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় চলতি মাসে সৃষ্টি হতে পারে। এর নাম হবে ‘সিত্রাং’।এই নামটি দিয়েছে থাইল্যান্ড। ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ অথবা ভারত-বাংলাদেশের উপকূলের কোনো একটি স্থান দিয়ে স্থলভাগ পার হতে পারে এটি।

সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে জানিয়েছি, অক্টোবরে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে, যার মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে হতে পারে।

তবে এটি কখন সৃষ্টি হবে, এটি শক্তিশালী হবে কি না, তা এখনই বলা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ, একটি সিস্টেমে কয়েকটি ধাপ পার হয়ে তারপর ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হয়।’

‘এখনো মৌসুমি বায়ু আছে। আমরা বলেছি, এ মাসের দ্বিতীয়ার্ধে মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশ থেকে বিদায়

নিতে পারে। যখন মৌসুমি বায়ু থাকে, তখন কিছু মৌসুমি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়, সেগুলো শেষ পর্যন্ত

নিম্নচাপেও পরিণত হতে পারে। তবে মৌসুমি বায়ু বিদায় নিলে তারপর লঘুচাপ সৃষ্টি হলে সেটি ঘূর্ণিঝড়ে

রূপ নিতে পারে।’
কানাডার সাসকাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া ও জলবায়ু বিষয়ক গবেষক মোস্তফা কামাল

পলাশ সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘১৮ থেকে ২৫ অক্টোবরের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি সুপার সাইক্লোন

সৃষ্টির আশঙ্কার কথা নির্দেশ করছে আমেরিকার আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেল গ্লোবাল ফোরকাস্ট সিস্টেম

বা সংক্ষেপে জিএফএস।’

‘এই ঘূর্ণিঝড়টি নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে ১৭ অক্টোবর, যা ১৮ অক্টোবরের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার কথা নির্দেশ করছে পূর্বাভাস মডেল। সম্ভাব্য এই ঘূর্ণিঝড়টির নাম হবে ‘সিত্রাং’।

তিনদিন আগের পূর্বাভাসে নির্দেশ করছিল, সম্ভাব্য ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের

সুন্দরবন উপকূলের ওপর দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করতে পারে। আজ ৯ অক্টোবরের পূর্বাভাসে নির্দেশ

করছে যে, সম্ভাব্য ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলের ওপর দিয়ে স্থলভাগে প্রবেশ করতে পারে।

ফলে আশঙ্কা করা যাচ্ছে, এই ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্য থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের

পশ্চিমবঙ্গের সুন্দরবন উপকূলের মাঝামাঝি যেকোনো একটি স্থলভাগে আঘাত করতে পারে।’

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন