• শনি. জানু ২৮, ২০২৩

বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-ভক্তরা ‘আমাদের মতোই পাগলাটে’—মেসিদের জাতীয় দলের টুইট

ডিসে ২, ২০২২

বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-ভক্তরা ‘আমাদের মতোই পাগলাটে’—মেসিদের জাতীয় দলের টুইট

কাতার বিশ্বকাপে আলোচনায় বাংলাদেশের ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থক।

এর আগে ফিফা বাংলাদেশের ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থকদের

ছবি টুইট করেছিল। এবার আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের টুইটার

হ্যান্ডল থেকে টুইট করা হয়েছে বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-ভক্তদের উচ্ছ্বাসের ছবি।

অর্থাৎ, লিওনেল মেসি-আনহেল দি মারিয়াদের দলের টুইটার হ্যান্ডল

থেকে করা টুইটে বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-ভক্তদের সমর্থনের প্রশংসা করা হয়েছে।

আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডলের

নাম ‘সিলেকশন আর্জেন্টিনা’। এই টুইটার হ্যান্ডলে কাল রাতে

বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-ভক্তদের তিনটি ছবি প্রকাশ করা হয়।

ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘আমাদের দলকে সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ।

তারা (বাংলাদেশি) আমাদের মতোই পাগলাটে।’ একটি ছবিতে

দেখা যায়, প্রচুর দর্শক একসঙ্গে বসে খেলা দেখছেন। অন্য

একটি ছবিতে একটি কম বয়সী ছেলে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে

উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে এবং তার পেছনে আরও অনেকেই মেসিদের

জার্সি পরে খেলা দেখছেন। তৃতীয় ছবিটিও আর্জেন্টিনার সমর্থকদের উচ্ছ্বাসের।

এই টুইটে বাংলাদেশের এক আর্জেন্টিনা-ভক্ত মন্তব্যে জানান,

তার স্কুলের ছাদে আর্জেন্টিনার জাতীয় পতাকা ওড়ানো হয়েছে।

এটির একটি ছোট্ট ভিডিও-ও সেখানে জুড়ে দেওয়া হয়।

করতালিসূচক ইমোতে এই মন্তব্যের জবাব দেওয়া হয় আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের টুইটার হ্যান্ডল থেকে।

বাংলাদেশের আরেক আর্জেন্টিনা-ভক্ত প্রচুর আর্জেন্টিনা

সমর্থকের একটি ছবি পোস্ট করে মন্তব্য করেন, ‘ধন্যবাদ আর্জেন্টিনা।

তোমাদের জন্য আমাদের ভালোবাসা কখনো শেষ হবে না।

২০১১ সালের মতো আবারও এই দেশে আসো।’ টুইটার হ্যান্ডল

থেকে জবাব দেওয়া হয়, ‘আমরা তাদের (বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা সমর্থক) চাই।’

আর্জেন্টিনার ম্যাচ চলাকালীন ভক্তদের মোবাইলের ফ্ল্যাশে বানানো

আলোকসজ্জার একটি ভিডিও পোস্ট করেন বাংলাদেশের এক

আর্জেন্টিনা সমর্থক। সেখানে হ্যান্ডল থেকে জবাব দেওয়া হয়,

‘তারা এতটা পাগলাটে ভক্ত! আমরা তাদের ভালোবাসি।’

এমন আরও প্রচুর ভক্তের মন্তব্যের জবাব দেওয়া হয় মেসিদের জাতীয় দলের টুইটার হ্যান্ডল থেকে।

এর আগে আর্জেন্টিনা-মেক্সিকো ম্যাচে বাংলাদেশি দর্শকদের

লিওনেল মেসির গোল উদ্‌যাপনের একটি ভিডিও টুইট করেছিল

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। ফিফার অফিশিয়াল টুইটার

অ্যাকাউন্ট থেকে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের একটি

ভিডিও পোস্ট করে লেখা হয়েছিল, ‘এটাই ফুটবলের শক্তি।

বাংলাদেশের আর্জেন্টিনা-সমর্থকেরা এভাবেই লিওনেল মেসির গোল উদ্‌যাপন করছেন।’

ফিফা পরে বাংলাদেশের ব্রাজিল সমর্থকদের বাঁধভাঙা উল্লাসের

ছবিও প্রকাশ করে। ব্রাজিল-সুইজারল্যান্ড ম্যাচটি দেশের বিভিন্ন

স্থানে বড় পর্দায় দেখেছেন হাজার হাজার মানুষ। স্বাভাবিকভাবেই

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও

বড় পর্দার সামনে জড়ো হয়েছিলেন হাজারো দর্শক।

সমর্থকদের জমায়েত হওয়ার এমন কয়েকটি ছবি পোস্ট

করে ফিফা লিখেছিল, ‘ফুটবলের মতো অন্য কিছু মানুষকে এভাবে একত্র করতে পারে না।’

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন