• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

সরিষাবাড়ীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া : পুলিশসহ আহত ১৫

অক্টো ৩১, ২০২২
আধিপত্য

দেশের বৃহত্তর ইউরিয়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জামালপুরের সরিষাবাড়ীর তারাকান্দিতে অবস্থিত যমুনা সার কারখানায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু‘পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ককটেল ফোটানোসহ গুলি ছোঁড়া হয়েছে।

এতে তিন পুলিশ সদস্যসহ উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার ২২০ জনকে আসামী করে মামলা করে পুলিশ। এর আগে রোববার রাতে যমুনা সার কারখানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের তারাকান্দিতে যমুনা সার কারখানা প্রতিষ্ঠিত।

কারখানা এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রায়ই দু‘পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এ নিয়ে

রোববার রাতে রফিকুল ইসলাম ও আশরাফুল আলম মানিকের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

এ সময় ককটেল ও ইট পাটকেল নিক্ষেপসহ গুলি ছোঁড়ার ঘটনা ঘটে। ইট পাটকেলের আঘাতে

কারখানা এলাকায় পার্কে রাখা কয়েকটি ট্রাক ও রফিকুল ইসলামের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলাকালে তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই আব্দুল আজিজ, এএসআই

সাইফুল আলম ও পুলিশ সদস্য আবদুস সালাম আহত হন। এ সময় উভয়পক্ষের আরো ১২ জন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

আহতদের মধ্যে গুরুতর আহত রায়হান (৫৫), মিনহাজ (২৭) ও রফিককে (৩২) জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তিন রাউন্ড সর্টগানের ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে পুলিশ।

ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জামাল মিয়া ও ময়নাল নামে দু‘জনকে আটক করে পুলিশ।

এছাড়া একই ঘটনায় কারখানা এলাকার পাশে কান্দারপাড়া বাজারে সাংবাদিক মিজানুর রহমানের

বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরসহ নগদ টাকা ও মালামাল লুটের ঘটনা ঘটে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বলেন, কোনো কারণ ছাড়াই

আশরাফুল আলম মানিকের লোকজন তার লোকজনের ওপর হামলা চালিয়ে মারধর করে।

পরে হামলাকারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে তার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাঙচুর চালায়।

এছাড়া ঘটনাকালীন তারা তারাকান্দি ট্রাক ও ট্যাংলড়ি মালিক সমিতির সামনে ২০ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

তারাকান্দি ট্রাক ও ট্যাংলড়ি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম মানিকের মোবাইলফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহব্বত কবীর বলেন, আশরাফুল আলম মানিক ও রফিকুল ইসলাম পক্ষদ্বয় রোববার রাতে মুখোমুখি অবস্থান নেয়। তাদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে তিন পুলিশ সদস্য আহত হন। পুলিশ উভয়পক্ষের ২২০ জনকে আসামী করে মামলা করেছে। এতে দু’জনকে আটক করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন