• সোম. ডিসে ৫, ২০২২

সাভারে দুই শতাংশ জমি নিয়ে সহোদরের ৩০ বছরের দ্বন্দ্ব

অক্টো ১৪, ২০২২
শতাংশ

সাভার পৌরসভা এলাকায় দুই শতাংশ জমির দাবি নিয়ে দুই আপন ভাইয়ের ভেতর ৩০ বছর যাবৎ দ্বন্দ্ব চলে আসচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা কয়েকবার চেষ্টা করেও সমাধান

মুখ দেখেনি। শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে পৌরসভার জামসিং এর ১ নং

এলাকার ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি পৌসভার ১ নং

ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রমজান আলী ও সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক

(এসআই) মাহবুব হোসেন। স্থানীয়রা জানায়, জামসিং এলাকার আব্দুর রহমান

মোল্লা (৯৫) ও আলাল উদ্দিন মোল্লা (৮০) নামের দুই ভাইরের ৫৬ শতাংশ

জায়গায় রয়েছিলো। সেখান থেকে দুই ভাই আলাদা আলাদা ২৬ শতাংশ করে

জায়গা পেয়েছে। আর বাকি ৪ শতাংশের মধ্যে দুই শতাংশ করে দুই ভাই পাবে।

ছোটো ভাই আলাল উদ্দিন মোল্লা দুই শতাংশ জায়গায় রাস্তা করার জন্য ৩০

বছর যাবৎ চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু বড় ভাই আব্দুর রহমান মোল্লা রাস্তা না

করতে দিয়ে সেখানে দেয়াল তৈরি করেছে। পরে গত বুধবার (১২ অক্টোবর) ভেকু

দিয়ে সেই দেয়াল ভেঙে ফেলে আলাল উদ্দিন মোল্লা ও তার ছেলে। পরে পুলিশ

ঘটনা স্থলে গিয়ে ভেকু বন্ধ করে দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। আজ শুক্রবার

পুলিশ ও স্থানীয় কাউন্সিলর আবার ঘটনা স্থলে গিয়ে দুই পক্ষের সাথে কথা

বলে আলোচনায় বসতে বলে। এদিকে ভেকু দিয়ে দেয়াল ভেঙে ফেলায় থানায়

অভিযোগ করতে গিয়েও অভিযোগ পত্র জমা না দিয়ে ফিরে এসেছেন বড় ভাই

আব্দুর রহমানের নাতি মোয়াজ্জেম হোসেন। অব্দুর রহমানের পক্ষে মোয়াজ্জেম

হোসেন বলেন, গত বুধবার সকালের দিকে কিছু সন্ত্রাসী আলাল উদ্দিন মোল্লা ও

তার ছেলের নেতৃত্বে আমাদের বাড়ির দেয়াল ও ঘর ভেকু দিয়ে ভাঙচুর করে।

এসময় তারা আমাদের সব কিছু ভেঙে ফেলাসহ আমাদেরকে মেরে ফেলতেও বলে।

পরে আমি জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন করলে পুলিশ এসে সব বন্ধ করে দেয়।

আসলে সমস্যাটা হলো রাস্তার জন্য আমরা ৫ ফিট জায়গা ছেড়ে দিয়েছিলাম

কিন্তু আলাল উদ্দিন মোল্লারা বলছে তারা ১২ ফিট রাস্তা নিবে। পরে আমরা

বলেছিলাম আমরা যদি ১২ ফিট রাস্তা দেই তাহলে আপনাদের বাড়ির পেছনে

যেখানে জমি আছে সেখান থেকে জায়গায়া ছেড়ে দেন। কিন্তু না তারা কোনো

জায়গায়া না ছেড়ে এখান থেকেই ১২ ফিট জায়গা দখল করতে আসে। বিষয়টি

নিয়ে আলাল উদ্দিন মোল্লার সাথে যোগাযোগ করে কথা বলা না গেলেও তার

স্ত্রী খোদেজা বেগম বলেন, আজ ৩০ বছর যাবৎ এই রাস্তা নিয়ে মারামারি

ঝগড়াঝাঁটি হচ্ছে। অথচ দুই ভাই দুই শতাংশ করে জায়গায় পাবে। আমাদের দুই

শতাংশ জায়গা আমাদের দিয়ে দেক কিন্তু না তারা পুরো জমির উপর দেয়াল

তৈরি করেছে৷ আমাদের তো রাস্তা লাগবে তাই ভেঙে ফেলা হয়েছে। গত কয়েক

দিনের ভেতর আব্দুর রহমানের তিনটি স্ত্রী ও তার সন্তানরা আমার একছেলে ও

স্বামীকে বিভিন্ন সময় মারার দা, কুড়াল নিয়ে মারতে আসছে। অনেক অত্যাচার

করেছে আমাদের উপর। এ ব্যাপারে সাভার পৌসভার ১ নং ওয়ার্ডের

কাউন্সিলর রমজান আলী বলেন, আমি আজ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি।

কার কত ক্ষতি হয়েছে সেই ক্ষতির একটি তালিকা দিতে বলেছি। সেই সাথে

স্থানীয়ভাবে প্রশাসন নিয়ে বিষয়টি সমাধান করার জন্যও আলোচনা চলছে।

সাভার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহবুব হোসেন বলেন, আমি ঘটনা

স্থল পরিদর্শন করেছি। এক পক্ষ অভিযোগ লিখেছিলো কিন্তু থানায় জমা দেয়নি। তাদেরকে ডেকেউ পাচ্ছি না।

তারা যদি থানায় মামলা দেয় তাহলে মামলা নেবো। তাদের নিজেদের ব্যাপার।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন