• সোম. ডিসে ৫, ২০২২

১৮ বছর পর গুয়ানতানামো বে কারাগার থেকে মুক্তি, দেশে ফিরলেন পাকিস্তানি

অক্টো ৩০, ২০২২
কারাগার

দীর্ঘ ১৮ বছরের কারাজীবন শেষে যুক্তরাষ্ট্রের গুয়ানতানামো বে কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন সাইফুল্লাহ পরচা নামের এক পাকিস্তানি নাগরিক। শনিবার তিনি পাকিস্তানে এসে পৌঁছান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ডন নিউজ উর্দু জানায়, দীর্ঘ ১৮ বছর পর যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন সাইফুল্লাহ।

ডনের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ৭৫ বছর বয়সী সাইফুল্লাহ পরচা গুয়ানতানামো বে কারাগারে সবচেয়ে বেশি সময় বন্দী ছিলেন।

আল-কায়েদার সাথে সম্পর্ক থাকার সন্দেহে তাকে আটক করা হয়েছিল।

কিন্তু তার বিরুদ্ধে অপরাধের জন্য কোনো পোক্ত প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ২০২১ সালের মে মাসে তার মুক্তি অনুমোদিত হয়।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, বিদেশে আটক একজন পাকিস্তানি নাগরিক অবশেষে তার পরিবারের সাথে পুনরায় মিলিত হওয়ায় তারা আনন্দিত।

পাকিস্তানের একজন বড় ব্যবসায়ী ছিলেন সাইফুল্লাহ পরচা। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করতেন। নিউইয়র্কে তার প্রোপার্টি ছিল।

যুক্তরাষ্ট্র ২০০৩ সালে থাইল্যান্ড থেকে পরচাকে আটক করে। ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বর থেকে তাকে গুয়ানতানামোতে আটক করে রাখা হয়।

নাইন ইলেভেন হামলার পর ২০০২ সালের ১১ জানুয়ারি কিউবায় গুয়ানতানামো বে কারাগারটি চালু করে যুক্তরাষ্ট্র।

কথিত সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধের নামে তৎকালীন মার্কিন প্রশাসন বিভিন্ন দেশে যে সামরিক অভিযান শুরু করে, সেখানে গ্রেফতার লোকদের এই কারাগারে নিক্ষেপ করা হয়।

মানবাধিকার পর্যবেক্ষকরা জানান, কোনো ধরনের প্রচলিত আইন ও বিচারের মুখোমুখি না করেই বিদেশী যুদ্ধ বন্দীদের এই কুখ্যাত কারাগারে বছরের পর বছর রেখে দেয় মার্কিন সামরিক কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : ডন ও অন্যান্য

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন