• শুক্র. ডিসে ২, ২০২২

১ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার কাছে নিগারদের অবিশ্বাস্য হার

অক্টো ১০, ২০২২
উইকেট

বৃষ্টির ভয় ছিল সকাল থেকেই। এর মধ্যেই নারী এশিয়া কাপে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচের প্রথম ইনিংসের ১৮.১ ওভারের খেলা হয়।

তখন শ্রীলঙ্কার রান ছিল ৫ উইকেটে ৮৩। এরপর বৃষ্টির কারণে প্রায় দেড় ঘণ্টা খেলা বন্ধ ছিল।

বেলা ১১.৫০ এ যখন খেলা শুরু হলো, বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৭ ওভারে ৪১ রান। শেষ পর্যন্ত সে রানটাও করতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা।

ব্যাটিং ভরাডুবির পর বাংলাদেশ করতে পেরেছে ৭ উইকেটে ৩৭ রান। ৩ রানের অবিশ্বাস্য জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে লঙ্কান মেয়েরা।

রান তাড়ার শুরুটা অবশ্য বাংলাদেশের ভালো হয়নি। দুই ওপেনার ফারজানা হক ও মুর্শিদা হক আউট হন দলীয় ১২ রানের মধ্যে।

তবে নিগার ও রুমানা সে চাপটা সামলে নিয়েছেন ছোট জুটি গড়ে। দুজনের ব্যাটিংয়ে রান রেটও ছিল নাগালে।

শেষ দুই ওভারের বাংলাদেশের জয়ের জন্য দরকার ছিল মাত্র ১২ রান।কিন্তু আইনোকা রানাওয়েরার করা ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে ম্যাচের ছবিটা পাল্টে যায়।

এই বাঁহাতি স্পিনারের এক ওভারেই ৪ উইকেটের পতন ঘটে। রুমানা, নিগার, সোবহানা ক্যাচ আউট হওয়ার পর ওভারের শেষ বলে রান আউট ফাহিমা।

অবিশ্বাস্য সেই ওভারের পর বাংলাদেশের জয়ের জন্য ৬ বলে দরকার ছিল ১১ রান। সেই ওভারে আরও একটি উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের ইনিংস থেমেছে ৭ উইকেটে ৩৭ রানে।

অথচ আজ কন্ডিশন, টস ভাগ্য-সবই পক্ষে ছিল বাংলাদেশের। মেঘলা আবহাওয়া, স্যাঁতস্যাঁতে উইকেট-এমন কন্ডিশনে টস জিতেছেন নিগার সুলতানা।

প্রত্যাশিতভাবেই বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নারী দলের অধিনায়ক।

এরপর সে কন্ডিশন কাজে লাগিয়েছেন প্রথম তিন ম্যাচ একাদশে সুযোগ না পাওয়া জাহানারা আলম।

প্রত্যাবর্তনের ম্যাচটা তিনি রাঙিয়েছেন অবিশ্বাস্য এক ডেলিভারিতে লঙ্কান অধিনায়ক চামারি আতাপাত্তুকে বোল্ড করে।

নিজের প্রথম ওভারের শেষ বলে রাউন্ড দ্য উইকেট থেকে আসা বলটি বিশাল ইনসুইং করে খুঁজে নিয়েছে আতাপাত্তুর স্টাম্প।

আতাপাত্তু তো বটেই। জাহানারার চোখে মুখেও তখন অবিশ্বাস, সঙ্গে আনন্দও।

সেই উইকেটটিই মেয়েদের ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি পেসার হিসেবে জাহানারাকে ১০০তম উইকেটের মাইলফলকে পৌঁছে দিয়েছে।

তার আগে স্পিনার সালমা খাতুন, রুমানা আহমেদ ও নাহিদা আক্তার টি-টোয়েন্টিতে এক শ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন।

জাহানারার ওই কীর্তির পর বাকি বোলাররাও লঙ্কান ব্যাটারদের চেপে ধরেন। অসম্ভব নিচু বাউন্সের উইকেটে সুবিধা করতে পারেননি লঙ্কানরা।

ওদিকে বৃষ্টিও আসবে আসবে করছিল।

শেষ পর্যন্ত ইনিংসের ১৮.১ ওভারে বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয়। বাংলাদেশের হয়ে রুমানা আহমেদ সর্বোচ্চ ২টি উইকেট নেন।

ফাহিমা খাতুন, সানজিদা আক্তার ও জাহানারা নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।

শ্রীলঙ্কার কাছে এই হারের কারণে শেষ চারে যেতে বাংলাদেশকে চেয়ে থাকতে হবে ভারত-থাইল্যান্ডের ম্যাচের দিকে।

যেখানে ভারতের জয়ের আশা করতে হবে নিগারদের। এরপর নিজেদের শেষ ম্যাচে হারাতে হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে।

আরও আপডেট নিউজ জানতে ভিজিট করুন